List/Grid

Archive: Page 415

জীববৈচিত্র্যে অনন্য সুন্দরবন- পর্ব-৩

বাঘ (R oyal Bengol Tiger):ভুবন বিখ্যাত রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার একমাত্র সুন্দরবনেই বাস করে। রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার বড় বিড়াল(panthera)গোত্রের সদস্য। এ গোত্রের অন্য সদস্যরা হ’ল সিংহ,চিতাবাঘ,স্নো-লেপার্ড ও জাগুয়ার।

মুক্তিযুদ্ধের এক বিশেষ অধ্যায়; চুকনগরের গণহত্যা

“মানুষের যতগুলো অনুভূতি আছে তার মাঝে সবচেয়ে সুন্দর অনুভূতি হচ্ছে ভালোবাসা। আর এই পৃথিবীতে যা কিছু ভালোবাসা সম্ভব তার মাঝে সবচেয়ে তীব্র ভালোবাসাটুকু হতে পারে শুধুমাত্র মাতৃভুমির জন্যে”–মুহম্মদ জাফর ইকবাল। ১৯৭১ সাল বাঙালি জাতির ইতিহাসে একটি রক্তঝরা অধ্যায়ের সূচনা হয়। যার হাত ধরে দীর্ঘ নয় মাসের রক্তক্ষয়ী সংগ্রামের পর পৃথিবীর মানচিত্রে একটি নতুন দেশের জন্ম হয়। সে দেশের নাম বাংলাদেশ।

ডাক্তার বাহারের রোগমুক্তি কামনা করেছেন খুলনা এডাব সদস্যগণ

বিশিষ্ট চিকিৎসক ও নাগরিকনেতা বিএমএ (বাংলাদেশ মেডিকেল এ্যাসোসিয়েশন) কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি, স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদ খুলনা’র সভাপতি এবং স্বাস্থ্য ও জন-উন্নয়ন সংস্থার চেয়ারম্যান ডা. শেখ বাহারুল আলম’র দ্রুত আরোগ্য কামনা করে বিবৃতি দিয়েছেন এডাব খুলনা জেলা কমিটির কার্য-নির্বাহী পরিষদের সদস্যবৃন্দ।

মোড়কে পাট পণ্য ব্যবহার আইন দ্রুত বাস্তবায়ন ও রাষ্ট্রয়াত্ব পাটকল হোল্ডিং কোম্পানী করার সিদ্ধান্ত বাতিল করতে হবে

পাট ও পাট শিল্প রক্ষা কমিটির উদ্যোগে গত ২৩ জুলাই খুলনা প্রেস ক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক খালিদ হোসেন।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, ১৯৭২ সালে রাষ্ট্রপতির আদেশ নং চ.ঙ-২৭ অনুযায়ী ব্যাক্তি মালিকানাধীন ও পরিত্যাক্ত পাটকল সাবেক ইপিআইডিসি’র পাটকল সহ ৬৭ টি পাটকলের তদারকী, পারচালনা, নিয়ন্ত্রনের লক্ষে বাংলাদেশ পাট কল কর্পোরেশন (বিজেএমসি) গঠিত হয়।

জীববৈচ্যিত্রে অনন্য সুন্দরবন-পর্ব-২

সুন্দরবনের পাখিঃ সুন্দরবনে বিপুল সংখ্যক পাখি বাস করে।সুন্দরবনে শর্বাধিক নয় প্রজাতির মাছরাঙা বাস করে। এসব মাছরাঙার মধ্যে আছে ছোট মাছরাঙা,নীল কান মাছরাঙা,খয়রী মাছরাঙা,কালোটুপি মাছরাঙা,সাদাবুক মাছরাঙা,কন্ঠি মাছরাঙা,লাল মাছরাঙা,গরিয়াল মাছরাঙা,ফটকা মাছরাঙা।অন্যান্য পাখিরা হ’ল বন কোকিল,বউ-কথা-কও

নগরিতে ভেজাল বিরোধী অভিযানে ভেজাল পণ্য বিক্রির দায়ে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান কে জরিমানা

বাণিজ্য মন্ত্রণালয়াধিন জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের খুলনা বিভাগীয় কার্যালয়ের উদ্যোগে গতকাল ২১ জুলাই খুলনা মহানগরীর নিউ মার্কেট, জোড়াগেট ও দৌলতপুর এলাকায় এক ভেজাল বিরোধি অভিযান পরিচালিত হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন অধিদপ্তরের উপ পরিচালক সৈয়দ রবিউল আলম।
এ অভিযানে বিভিন্ন প্রতিষ্ঠান তদারকি করা হয় এবং পণ্যে উৎপাদন তারিখ লিপিবদ্ধ না থাকা, সর্বোচ্চ খুচরা বিক্রয় মূল্য না লেখা থাকা, অধিক মূল্যে পণ্য বিক্রি, খাদ্যে নিষিদ্ধ পণ্য মিশ্রণ, অবৈধ প্রক্রিয়ায় পণ্য উৎপাদন এবং মেয়াদ উত্তির্ণ পণ্য বিক্রি করায় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ অনুসারে খুলনা ফল কে পাঁচ হাজার টাকা, ইফাত স্টোর কে তিন ইয়াজার টাকা, আজাদ স্টোর কে পাঁচ হাজার টাকা, শেফা ভ্যারাইটিজ কে তিন হাজার টাকা, শাহীন বেকারী কে ১০ হাজার টাকা, নুর লাচ্ছা সেমাই কে ১০ হাজার টাকা, হেনা স্টোর কে দুই হাজার টাকা , কাদেরের হোটেল কে তিন হাজার টাকা, অভি ড্রাগস হল কে ১০ হাজার টাকা, আউয়াল মেডিকেল হল কে ৩০ হাজার টাকা এবং সেভ এন্ড সেফ কে ২০ হাজার টাকা সহ মোট ১১ টি প্রতিষ্ঠানকে সর্বমোট ১,০১,০০০ ( এক লক্ষ এক হাজার) টাকা জরিমানা করা হয় এবং এই অর্থ তাৎক্ষনিকভাবে অভিযুক্ত প্রতিষ্ঠানগুলি স্বেচ্ছায় পরিশোধ করেন। অভিযানকালে সকলকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইন ২০০৯ অনুসারে ভোক্তা অধিকার বিরোধী কার্যাবলী হতে বিরত থাকার অনুরোধ জানানো হয় ও লিফলেট বিতরণ করা হয়।
এই অভিযানে মহানগর পুলিশ, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের সহকারি পরিচালক ও কর্মচারীবৃন্দ, পরিবেশ অধিদপ্তর, কৃষি বিপণন অধিদপ্তর, ক্যাব এর প্রতিনিধি, স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ, সাংবাদিক এবং ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দ সহায়তা করেন।